নোয়াখালীতে সাংবাদিক সুমনকে নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

নোয়াখালী প্রতিনিধি : সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতনসহ নোয়াখালীর সুবর্ণচরে সাংবাদিক মো. ইমাম উদ্দিন সুমনের ওপর হামলাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

রোববার দুপুরে নোয়াখালী প্রেসক্লাব চত্তরে বাংলাদেশ রিপোর্টাস ক্লাব নোয়াখালী জেলা শাখা এ মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে।

মানববন্ধন শেষে হামলাকারী ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারপূর্বক শাস্তির দাবিতে বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতির (বাসাস) মহাসচিব মনিরুজ্জামান চৌধুরীর নেতৃত্বে জেলা প্রশাসক তন্ময় দাসের কাছে স্মারক লিপি পেশ করা হয়।

সাংবাদিক ইমাম উদ্দিন সুমন সময়ের কণ্ঠস্বর ডট কমের নিউজরুম এডিটর, দৈনিক নোয়াখালী প্রতিদিনের প্রতিবেদক ও ডেইলি অবজারভার পত্রিকার সুবর্ণচর প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত আছেন।

মানববন্ধনে বাংলাদেশ রিপোর্টাস ক্লাব নোয়াখালী জেলা শাখার সভাপতি মো. ইদ্রিস মিয়ার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ও ভোরের কাগজ নোয়াখালী প্রতিনিধি মোহাম্মদ সোহেল এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন দৈনিক মানবজমিন স্টাফ রিপোর্টার নাসির উদ্দিন বাদল, এনটিভি স্টাফ রিপোর্টার মাসুদ পারভেজ, ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের নোয়াখালী প্রতিনিধি আবু নাছের মঞ্জু, নিউজ ২৪ নোয়াখালী প্রতিনিধি আকবর হোসেন সোহাগ, যমুনা টেলিভিশনের নোয়াখালী প্রতিনিধি মোনতাসিম বিল্লাহ সবুজ, কলকাতা টেলিভিশনের নোয়াখালী প্রতিনিধি এ.আর আজাদ সোহেল।

এসময় এসএ টিভির নোয়াখালী প্রতিনিধি আবদুর রহিম বাবুল, চ্যানেল আই নোয়াখালী প্রতিনিধি আলা উদ্দিন শিবলু, আনন্দ টিভি নোয়াখালী প্রতিনিধি নাজিম উদ্দিন মিলন, বাংলা নিউজ ২৪ ডটকমের নোয়াখালী প্রতিনিধি ফয়েজুল ইসলাম জাহান, মোঃ আবদুল্লাহ রানা, সাংবাদিক মো. সেলিম, জুয়েল রানা লিটন সহ জেলায় কর্মরত প্রিন্ট, ইলেক্টনিক্স ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকগন উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য- গত ১১ জুলাই বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় সুবর্ণচরের ২নং চরবাটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়রম্যান মোজাম্মেল হোসেনের বাড়ির কেয়ারটেকার ইসমাইল (৪৮) রহস্যজনকভাবে মারা যায়। ওই ঘটনায় সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে চরজব্বর থানার ওসি সাহেদ উদ্দিন চৌধুরীর উপস্থিতিতে মোজাম্মেল এবং তার সহযোগীরা সুমনের ওপর হামলা করে।

ওই ঘটনায় চরজব্বর থানায় চেয়ারম্যান মোজ্জামেল সহ তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ইমাম উদ্দিন সুমন। ঘটনার এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও হামলাকারীদের গ্রেফতার না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন জেলায় কর্মরত সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ।

আরো দেখাও

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close