ভিপি নুরের ফোনালাপ ফাঁস

তার দাবি বিকৃতভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে

নিউজ ডেস্ক : টেলিভিশন চ্যানেলে ফাঁস হওয়া তার ফোনালাপকে বিকৃত বলে অভিযোগ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুর।

মঙ্গলবার কয়েকটি ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রচারিত তার ফোনালাপ ফাঁসের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি এ দাবি করেন।

একটি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচারিত সংবাদে বলা হয়, ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরের একটি অডিও ক্লিপ ফাঁস হয়েছে। সেখানে নুরুকে জনৈক এক প্রকল্প কর্মকর্তার কাছে তদবির করতে শোনা গেছে। এছাড়া প্রবাসে এক বাংলাদেশির সঙ্গে টেলিফোনে টাকা লেনদেনের বিষয়ে কথা বলতে শোনা গেছে। এখানে ডাকসু ভিপি তার আত্মীয়র একটি প্রকল্প নিয়ে এক প্রকল্প কর্মকর্তার সাথে কথা বলতে শোনা যায়। একই অডিওতে একজন প্রবাসী বাংলাদেশির কাছ থেকে টাকা চাওয়ার কথা শোনা গেছে।

ফোনালাপ নিয়ে প্রচারিত সংবাদে নুরের অডিও ক্লিপটি যে তার, সেটা তিনি স্বীকার করেছেন। ফাঁস হওয়া অডিও ক্লিপ প্রসঙ্গে নুর বলেন, ‘আমার একটি ফোনালাপ ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় বিকৃতভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। আমার পুরোপুরি কথা না শুনিয়ে কিছু অংশ কেটে প্রচার করেছে, যা সাংবাদিকদের নৈতিকতার সাথে যায় না। আমি এর বিরুদ্ধে একটি প্রতিবাদলিপি ও উকিল নোটিশ পাঠাব।’

ফোনালাপের বিষয়ে নুর ব্যাখা করেন, ‘আমার এক আন্টি অনেক আগে থেকেই কন্সট্রাকশনের বিজনেস করেন। এলাকায় আমার মামার ছেলে মারা যাওয়ায় আন্টি গিয়েছিলেন। তার একটি প্রকল্পে ১৩ কোটি টাকার মসজিদ নির্মাণের কাজ ছিল। ওই কাজের জন্য ব্যাংক গ্যারান্টি দেয়ার লাস্ট তারিখের আগের দিন আন্টি আমাকে ফোন দেন, পরিচিত কারো মাধ্যমে যাদের লাইসেন্স আছে তাদের মাধ্যমে যেন ব্যাংক গ্যারান্টি করে রাখি। যেহেতু লাস্ট দিন, তখন আমি আমার পরিচিত এক ভাইকে ফোন দিয়ে বলি কাজটি করতে পারবে কি-না, যেহেতু তিনি কন্ডাক্টর। এই ছিল আলাপ।’

নুর বলেন, ‘কিন্তু ওখানে (টেলিভিশন চ্যানেল) ফোনালাপের আংশিক তথ্য তুলে ধরেছে। ওখানে কিন্তু ক্লিয়ার করা নেই যে আমি কাউকে কাজের কথা বলছি বা কারো কাছে কাজ চাচ্ছি বা কাউকে সুপারিশ করছি সেটা না। আন্টি বলছেন যে, তার কাজের একটি ব্যাংক গ্যারান্টি দিতে পারবে কি-না? কারণ কন্সট্রাকশন কাজ করলে ব্যাংক গ্যারান্টি লাগে কাজের পারসেন্টেজ (শতকরা হার) অনুযায়ী।’

তিনি আরও বলেন, ‘এরপরে আরেকটি বিষয় যোগ করছে, একজন বলছিল যে আমাকে হেল্প করতে চায়। নাম, ই-মেইল চাইছে। সেখানে কিন্তু আমার কোনো উত্তর নেই। যেকোনো মানুষ যদি আমাকে ফোন দিয়ে বলে যে আপনার কোনো সাপোর্ট লাগলে হেল্প করব আমরা। আমি কী বলছি সেটা না দিয়ে তার অংশ কাট করে দিয়েছে। আমার মনে হচ্ছে এটা উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে তারা আমাকে বিব্রত করার জন্য এই ধরনের আংশিক অংশ প্রকাশ করেছে। এবং যেটা বলেছে এটাও সত্যও নয়। আমি এটার প্রেস রিলিজ দিয়ে এটা ক্লিয়ার করব। ওদেরকেও উকিল নোটিশ দেব।’

ভিপি নুর বলেন, ‘আমাকে ছাত্রলীগের কেউ ফোন দিয়ে বলে ভাই কেমন আছেন? তারপর যদি বলে আমি আপনাকে হেল্প করতে চাই। আমি আপনাকে টাকা পাঠাব। আপনার মেইল এড্রেস দেন, নাম -ঠিকানা দেন। আমি সেখানে কী বলছি সেটার রিপ্লাইও শোনা লাগবে। তার অংশটুকু শুনেই জাস্টিফাই করা যাবে না। আমার অংশটুকুও তো শুনতে হবে। আমি ডাকসু ভিপি আমারও বিভিন্ন জায়গা থেকে ফোন আসে। একটা লোক ফোন দিয়ে বলছিল আমি আপনাকে সহযোগিতা করতে চাই। কিন্তু আমি তাকে বলে দিছি আমরা অপরিচিত কারও কাছ থেকে সহযোগিতা নেব না। যদি প্রয়োজন হয় আমরা আপনাকে জানাবো। আমার উত্তরটা ছিল এটা। কিন্তু সেখানে তারা এটা যোগ করেনি।’

আরো দেখাও

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close