মামলা তুলে নিতে হুমকীর মুখে প্রবাসীর স্ত্রীর থানায় জিডি

আশকোনার সন্ত্রাসী মোমতাজ-আহসান হাবিবের নৈরাজ্য

স্টাফ রিপোর্টার : প্রবাসীর করা চাঁদাবাজি মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পর এবার জামিনে বেরিয়ে সেই প্রবাসীকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য প্রাণের হুমকী দিয়েছে মোমতাজ উদ্দিন।

রাজধানীর দক্ষিণখানের আশকোনার সন্ত্রাসী মোমতাজ উদ্দিন ওরফে মোন্তাজ চাঁদা চেয়ে জমি দখল ও নৈরাজ্য সৃষ্টির অভিযোগে প্রবাসীর স্ত্রীর করা মামলায় গত ২৭ আগস্ট গ্রেফতার হন।

পরে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর দু’দিনের মাথায় সে আবারো জামিনে বের হয়ে আসে।

এসেই সঙ্গী প্রবাসীর ছেলে ও স্ত্রীকে হুমকী দিতে থাকে। এ সময় মোমতাজের অন্যতম সহযোগী সঙ্গী স্থানীয় বিএনপি নেতা আহসান হাবিব মুরাদসহ বাহিনীর অন্যরাও এসে দেয়া ভেঙ্গে দিয়ে যায়।

এ পরিপ্রেক্ষিতে প্রবাসীর স্ত্রী মোছাঃ নিলুফা বানু গত ১ সেপ্টেম্বর দক্ষিণখান থানায় নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডাইরী (জিডি) করে।

জিডিতে নিলুফা বানু উল্লেখ করেন, তাঁর মামলার আসামী আহসান হাবিব মুরাদ, হাবিবুর রহমান হাসান, মোমতাজ উদ্দিন, সুরুজ মিয়াসহ তাদের বাহিনী এসে আশকোনার বাড়ির গ্যাস ও পানির সংযোগ নষ্ট করে যায়।

এছাড়া তারা বাড়ির সীমানা দেয়াল পুনরায় ভেঙে হুমকী প্রদান করে।

শুধু তাই নয়, দেয়াল ভেঙে তা সবকিছু নিজের বাড়ির ভেতরে নিয়ে যায় মন্তাজের বাহিনী।

জানা গেছে, আশকোনা হাজী ক্যাম্প রোডের এক প্রবাসীর বাড়ি নির্মান বন্ধ করে দিয়ে ভাংচুর ও চাঁদা দাবি করার অভিযোগে মামলাটি দায়ের করেছিলেন প্রবাসী নুরুল হুদা আবুর স্ত্রী নিলুফা খানম।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মোমতাজ উদ্দিন ওরফে মন্তাজ উদ্দিন হাজী ক্যাম্প সংলগ্ন সিরাজ হোটেলের মালিক। হোটেল ব্যবসার সূত্র ধরে সে প্রভাব বিস্তার করে তার নিজস্ব বাহিনী গড়ে তোলে।

ওই বাহিনী স্থানীয় বিভিন্ন ইস্যুতে ব্যবহারসহ চাঁদাবাজি, নৈরাজ্য সৃষ্টি তথা মারধোর করা, হুমকী বা ভয়ভীতি দেখিয়ে আতংক সৃষ্টি করতো।

এরই ধারাবাহিকতায় সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসী নুরুল হুদা আবুর ৫৪৭, হাজী ক্যাম্প রোড আশকোনার বাড়িটির নির্মাণ কাজে বাধা দিয়ে চাঁদা দাবি করে।

এ সময় তারা বাড়ির সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে ভেতরে মাদকের আখড়া বসায়। পরবর্তীতে চাঁদার টাকা না দিলে মেরে ফেলার হুমকী দেয়।

মামলা সুত্রে জানাজায়, মোন্তাজ উদ্দিন এক প্রবাসীর জমি দখল চেষ্টা করে এবং প্রবাসীর কাছে থেকে ৩০ লাখ টাকা চাদা দাবি করেন৷

গত ২০১৮ সালের ১০ এপ্রিল দাবি করা চাঁদার টাকার দাবিতে বাউন্ডারি দেয়াল ভাংচুর ও ঘরে ঢুকে লুটপাট চালায়।

এতে প্রবাসীর স্ত্রী  নিলুফা খানম বাদী হয়ে দক্ষিণ খাঁন থানায় মোন্তাজ উদ্দিনকে আসামী করে একটি চাদাবাজির মামলা করেন, মামলা নং ১৩৬/১৮ । গত বছরে ২২ মে মামলাটি ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত -১৩ তে দায়ের করা হয়।

মামলার অপর আসামীরা হচ্ছে, আশকোনার মৃত আব্দুল জায়েদের ছেলে মোঃ আহসান হাবিব মুরাদ ও মোঃ হাবিবুর রহমান, মৃত জনব আলীর ছেলে মোঃ সুরুজ মিয়া ও মোঃ বিপুল।

আরো দেখাও

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close