রাফিউজ্জামান রাফির নেতৃত্বে টোয়াব এর নতুন কমিটি

নিউজ ডেস্ক : দেশের পর্যটন খাতের শীর্ষ সংগঠন ট্যুর অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ বা টোয়াবের কার্যর্নিবাহী পরিষদের ২০১৯-‘২১ মেয়াদের নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করেছে ‘কনশাস রিরায়েন্স ফোরাম’।

এই প্যানেলের নেতা স্ট্রেইটওয়ে ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলসের সিইও মো. রাফিউজ্জামান হচ্ছেন টোয়াবের সভাপতি। এই প্যানেলের একজন ছাড়া সবাই জয়ী হয়েছেন। অপরদিকে তৌফিক রহমানের নেতৃত্বে ‘প্রজন্ম পরিষদ’ থেকে শুধু সৈয়দ সাফাত উদ্দীন আহমেদ তমাল জয়ী হয়েছেন।

আজ শনিবার রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ের বিএডিসি অডিটরিয়াম, সেচ ভবনে সকাল ১০টা থেকে শুরু করে বিকেল ৩টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

এতে মোট ভোটার ৪০৭ জন যার মধ্যে ৩৯১ জন সাধারণ ভোটার ও ১৬ জন সহযোগী ভোটার ভোট দেন। প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন হেলাল উদ্দীন। এছাড়া সদস্য হিসেবে আছেন মো. ইসহাকুল হোসেন সুইট এবং মো. আমজাদ হোসেন।

আগামীকাল রবিবার বাকি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর টোয়াবের বর্তমান কমিটির প্রথম সহসভাপতি মো. রাফিউজ্জামান এই সংগঠনের হাল ধরবেন।

তার নেতৃত্বে প্যানেলের যারা জয়ী হয়েছেন তারা হলেন- শিবলুল আযম কোরেশী, আবুল কালাম আজাদ, মো. সোহানুর রহমান স্বপন, মো. জালাল উদ্দীন, মো. আনোয়ার হোসেন, মো. মনিরুজ্জামান মাসুম, মো. শাহেদ উল্লাহ, সৈয়দ তানভির আহমেদ, মো. এ রউফ, মো. মনসুর আলম পারভেজ, মো. হানিফ।

এছাড়া অ্যাসোসিয়েট গ্রুপ থেকে জয়ী হয়েছেন মো. সজিবুল আল রাজিব।

জানতে চাইলে মো. রাফিউজ্জামান  বলেন, নির্বাচনে আমদের বিপুল ভোটে জয়ী করায় টোয়াবের সদস্যদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। আমরা পর্যটন খাতকে নতুন উচ্চতায় নেওয়ার মাধ্যমে তাদের মূল্যবান ভোটের প্রতিদান দেবো।

তিনি বলেন, পর্যটনের প্রসারে সঠিকভাবে কান্ট্রি ব্র্যান্ডিং জোরদার করা, টোয়াবের স্থায়ী কার্যালয়, বিমানবন্দরে টোয়াব সদস্যদের জন্য মিট অ্যান্ড গ্রিট সেবা চালু, যুগোপযোগি প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা, ট্যুর অপারেটরদের জন্য শুল্কমূক্ত গাড়ি আমদানির সুবিধা ও পর্যটনকে অগ্রাধিকার খাত হিসেবে প্রতিষ্ঠায় সরকারের সঙ্গে দেনদরবার করা, বিদেশি পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে সেবা প্রদানে পেশাদারিত্ব বাড়ানোর উদ্যোগে নেওয়া হবে।

১৫ সদস্যের কার্যনির্বাহী কমিটিতে রয়েছেন যারা

সভাপতি রাফিউজ্জামান, প্রথম সহ-সভাপতি শিবলুল আজম কোরেশি, সহ-সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, পরিচালক (অর্থ) মনিরুজ্জামান মাসুম, পরিচালক (পাবলিক রিলেশন) সোহানুর রহমান স্বপন, পরিচালক (আন্তর্জাতিক সম্পর্ক) মোহাম্মদ হানিফ, পরিচালক (প্রশিক্ষণ ও গবেষণা) সৈয়দ তানভীর আহমেদ, পরিচালক (আইন সম্পর্কিত) জালাল উদ্দিন, পরিচালক (মিডিয়া এন্ড পাবলিকেশন্স) শাহেদ উল্লাহ, পরিচালক (ট্রেড অ্যান্ড ফেয়ার) আনোয়ার হোসেন, পরিচালক (সহযোগী সদস্য) মো. সজিবুল আল রাজিব, পরিচালক রউফ, পরিচালক মানসুর আলম পারবেজ, পরিচালক সৈয়দ শাফাত উদ্দিন আহমেদ তমাল এবং সদ্য বিদায়ী সভাপতি ও পরিচালক তৌফিক উদ্দিন আহমেদ।

আরো দেখাও

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close