শুক্রবার, জুন ১৮, ২০২১

কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত মাদকবিরোধী অভিযান চলবে

স্পোর্টস ডেস্ক | আপডেট: বৃহস্পতিবার, জুন ৭, ২০১৮

কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত মাদকবিরোধী অভিযান চলবে

কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, মাদকবিরোধী অভিযান চলছে, কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত অভিযান চলবে।

আজ বুধবার বিকেলে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে ১৪ দলের মুখপাত্র ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম এ কথা বলেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, মাদকদ্রব্য পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসার আগ পর্যন্ত অভিযান চলবে। সরকারের যে মাদকবিরোধী অভিযান চলছে, কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত অভিযান চলবে। সরকারের মাদকবিরোধী অভিযান সফল করতে দলমত-নির্বিশেষে দেশের সব শ্রেণি-পেশার মানুষকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জঙ্গি দমনের মতো মাদকবিরোধী অভিযানে সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। মাদক দেশের তরুণ সমাজ থেকে শুরু করে নারী ও শিশুদেরও ধ্বংস করছে। দেশের মানুষ সরকারের মাদকবিরোধী অভিযানের সর্বাত্মক প্রশংসা করেছে। কেন্দ্রীয় ১৪ দলও সরকারের মাদকবিরোধী অভিযানকে পূর্ণ সমর্থন দিয়েছে।

জাতীয় নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের বিষয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সামরিক বাহিনী প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে। নির্বাচন কমিশন যদি প্রয়োজন মনে করে, তাহলে আইন অনুযায়ী সেনাবাহিনী নির্বাচনে নিয়োজিত থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংবর্ধনা দেওয়ার বিষয়ে মন্ত্রী নাসিম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের আসানসোলের কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাম্মানিক ডি.লিট ডিগ্রি অর্জন করেছেন। এ উপলক্ষে ৭ জুলাই রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগ প্রধানমন্ত্রীকে গণসংবর্ধনা দেবে। কেন্দ্রীয় ১৪ দল সেই সংবর্ধনায় অংশ নেবে।

গণ আজাদী লীগের সভাপতি এস কে শিকদারের সভাপতিত্বে বৈঠকে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক আবদুস সাত্তার, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) একাংশের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, গণ আজাদী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আতাউল্লাহ খান প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।